Important Update:-প্রত্যেক রাজ্যবাসীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ আপডেট আধার কার্ড ছাড়া হাসপাতালে পাওয়া যাবে না পরিষেবা

আর নাম নয়, এবার থেকে বাংলার যে কোনও প্রান্তের সরকারি হাসপাতালের রোগী মানেই একটি ১৪ সংখ্যার নম্বর। সেটাই এবার থেকে হবে রোগীর পরিচয়।(Important Update for Hospital)রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজে আসা কয়েক কোটি রোগীর জন্য চালু হল ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (ইউআইডি)।

আধার কার্ড ও মোবাইল নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য এলেই তৈরি হয়ে যাচ্ছে প্রত্যেক রোগীর নিজস্ব ১৪ সংখ্যার ইউনিক নম্বর (রোগীর অনুমতি সাপেক্ষে)। সেই নম্বর দিয়েই চেনা যাবে রোগীকে। মজুত থাকবে তাঁর চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্ত তথ্যও। তারপর থেকে যে কোনও প্রয়োজনে যে কোনও সরকারি হাসপাতালে গিয়ে ইউনিক নম্বরটি দিলেই হবে।

তার মাধ্যমে আউটডোর, ইমার্জেন্সি, ইন্ডোর – যে কোনও জায়গাতেই চিকিৎসক পেয়ে যাবেন রোগীর আগের চিকিৎসার সব তথ্য। অনলাইনে আউটডোর টিকিট করতে গেলে ও এখন চাওয়া হচ্ছে আধার কার্ড নম্বর। তা দিলেই ওটিপি’র মাধ্যমে তৈরি হয়ে যাচ্ছে ইউআইডি।

Ration Card Update: রেশন তোলার ক্ষেত্রে চালু হতে চলেছে নতুন এক নিয়ম বায়োমেট্রিকের পাশাপাশি নতুন নিয়ম চালু,জেনেনিন বিস্তারিত

পদস্থ কর্তাদের উপস্থিতিতে এক ভিডিও কনফারেন্সে প্রত্যেক জেলার স্বাস্থ্যকর্তাদের ইউআইডি প্রকল্প বাস্তবায়িত করতে বলেছে স্বাস্থ্যভবন।(Important Update for Hospital) দপ্তরের এক পদস্থ কর্তা বলেন, প্রকল্পটি আসলে ন্যাশনাল ডিজিটাল হেলথ মিশনের অন্তর্গত। শুধু বাংলা নয়, কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারিকা, ভবিষ্যতে দেশের যে কোনও সরকারি হাসপাতালে রোগীর পরিচয় হবে একটাই, ওই ১৪ সংখ্যার ইউআইডি।

এর লাভ হল ভবিষ্যতে রাজ্যের যে কোনও সরকারি হাসপাতাল বা মেডিক্যাল কলেজের আউটডোর, ইমার্জেন্সি বা ইন্ডোরে ডাক্তার দেখাতে বা ভর্তি হতে কোনও অসুবিধাই হবে না। চিকিৎসা সংক্রান্ত পুরনো কাগজপত্রও বয়ে বেড়াতে হবে না। ইউনিক আইডি জানালেই হবে। বেরিয়ে আসবে রোগীর এতদিনকার অসুখ ও তার চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্ত প্রেসক্রিপশন, রোগ ও রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট।(Important Update for Hospital) ঠিক যেমনটি আছে বড় বড় বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে। দপ্তর সূত্রের খবর, যেভাবে সরকারি হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে, তাতে বিভিন্ন নথি ‘পেপারলেস’ করা ছাড়া উপায় নেই। ই প্রেসক্রিপশন ও ই ডায়াগনস্টিক চালু হয়েছে এজন্যই। এগুলি পুরোদমে চালু হলে স্বাস্থ্যদপ্তরের অধিকাংশ কাজই হবে মোবাইলের এক ক্লিকেই।

এইরকম সংক্রান্ত আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে

Written by Biplab Mondal.

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here